‘এমন গোল খাওয়াও সম্মানের ব্যাপার’

0
126

তেল–চকচকে মাথায় বার কয়েক আঙুল চালালেন জিনেদিন জিদান। এরপর হাতটা এমনভাবে ঝাঁকালেন যেন তুরিনে আজ ভীষণ গরম পড়েছে। আসলে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সেই দুর্দান্ত গোলেই তাঁর এমন প্রতিক্রিয়া! সেই অলৌকিক মুহূর্তে রিয়াল কোচ যেন পরখ করতে চাইলেন, রোনালদোর গোলে তাঁর মাথায় বুঝি চুল গজিয়েছে!

শুধু জিদান নন, টিভি সেটের সামনে বসে ম্যাচটি দেখা দর্শকদের অনেকেই একই কাজ করেছেন। সত্যি বলতে, এক-দেড় মিনিটের সেই মুহূর্তটাই অলৌকিক। লুকাস ভাসকেজের বুলেট গতির শট চল্লিশ পার করা বুফন কী দারুণভাবেই না ‘সেভ’ করলেন! জুভেন্টাস গোলরক্ষকের এই জাদুকরি সেভকে রোনালদো স্রেফ ‘ওভার ট্রাম্প’ করেছেন।

জুভেন্টাস গোলপোস্টের কাছাকাছিই দাঁড়িয়ে ছিলেন রোনালদো। দানি কারভাহালের ক্রসটা ছিল তাঁর পেছনে, মানে গোলের উল্টো দিকে। সেটাও নিজের উচ্চতার চেয়েও বেশ উঁচুতে। এখান থেকে গোল করার চিন্তা কোনো সাধারণ ফুটবলারের মাথায় আসার কথা নয়। রোনালদোও সাধারণ কেউ নন। পেছনে ঘুরেই একটু এগিয়ে নিজেকে ছুড়ে দিলেন শূন্যে। বাইসাইকেল কিক!

আড়াআড়ি উচ্চতার বলকে এই কিকে পা ছোঁয়ানোই যেখানে অনেক কঠিন, সেখানে রোনালদোর শট বুফনকে নড়ার সুযোগটুকু পর্যন্ত না দিয়ে আশ্রয় নিয়েছে জালে। সেটাও আবার বুফনের ‘কনভেনশনাল’ ডাইভ দেওয়ার উল্টো প্রান্ত দিয়ে। জিদান কি আর এমনিতেই মাথায় হাত বোলানোর পাত্র! ৬৪ মিনিটে শিষ্যের এই গোলটি কিন্তু তাঁকে স্মৃতিকাতরও করেছে। সেটা বোঝা গেল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here